সম্পাদকীয় : আমরা টুটাব তিমির রাত

অদৃশ্য শত্রু, শজারু বীজাণু প্রোটিন কণা পুরো পৃথিবীকে পাল্টে দিয়েছে। আমরা ভাবতেও পারিনি এই অল্প সময়ে পৃথিবী এমনিভাবে বদলে যাবে। বিশ্বে প্রচুর প্রাণহানি ঘটেছে, ১০ লাখেরও বেশি। এ পর্যন্ত তিন কোটি ৩০ লাখ মানুষ সংক্রমিত হয়েছেন। দেশে দেশে ঘরে ঘরে হাহাকার তৈরি হয়েছে। বিশ্বে এক নির্মম নতুন ইতিহাস গেড়ে বসেছে। এ দুঃসময় ধীরে ধীরে আমরা কাটিয়ে উঠছি। আবার পরিস্থিতিকে মানিয়ে নিচ্ছি। পরিবেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলছি। অশুভের সঙ্গে খাপ খাইয়ে চলছি, বিকল্প পথ আবিষ্কার করে আমরা আবার যাপিত জীবনে ফিরে এসেছি।

শব্দঘর প্রথমবারের মতো ধাক্কা খেল। প্রায় ছয় মাস বন্ধ থাকার পর আবার চালু হলো ‘গল্পসংখ্যা ২০২০’ নিয়ে। আবার আমরা শুরু করছি নতুন উদ্যমে। অগ্রজ-অনুজ কথাশিল্পীদের সম্মিলিত প্রচেষ্টা, আগ্রহ আর উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আমরা ফিরে আসতে চাই আবার আমাদের সাহিত্যের উর্বর ভূমিতে। সাহিত্যচর্চায় নিজেকে, নিজেদেরকে একাত্ম করতে চাই। এ যাত্রায় আনন্দের সঙ্গে স্বতঃস্ফূর্তভাবে যোগ দিয়েছেন সত্তর জন কথাসাহিত্যিক। সবার প্রতি আন্তরিক ভালোবাসা জানাই। শুভ কামনা জানাই শব্দঘর-এর সঙ্গে থাকার জন্য, কৃতজ্ঞতা জানাই।

বিশ্বজুড়ে শব্দঘর, দেশজুড়ে শব্দঘর, সাহিত্যপ্রেমীদের মনে শব্দঘর আসন পাক, সবার অন্তর আলোকিত করুক, সবার আলো ধারণ করে নিজেই আলোকিত হোকÑ এটাই আমাদের চাওয়া। চলার পথে ভুলভ্রান্তি হয়, হচ্ছে। আশা করি সবাই আমাদের সেই ভুলটুকু ভালোবাসার সঙ্গে গ্রহণ করবেন। অনেকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারিনি, আবার অনেকে ব্যস্ততার কারণে অংশগ্রহণ করতে পারেননি। কিছু কিছু গল্প শব্দঘরের নীতিমালার সঙ্গে যায়নি বলে ছাপানো গেল না। সেই সব লেখকের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলছি আবারও আপনারা গল্প পাঠাবেন। আমরা চেষ্টা করব গল্পটি যেন যথাযথ মূল্যায়ন পায়।

এ সংখ্যার জন্য প্রচ্ছদ করেছেন আমাদের প্রিয় কথাশিল্পী চিত্রকর ধ্রুব এষ। সবার জন্য শুভকামনা। বিজ্ঞাপনদাতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

করোনাকালে আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন শব্দঘরের উপদেষ্টা ড. আনিসুজ্জামান, চিত্রশিল্পী মুর্তজা বশীর, কামাল লোহানী, কথাসাহিত্যিক বোরহানউদ্দিন খান জাহাঙ্গীর, রাহাত খান, মকবুলা মনজুর, সাইদা খানম, আলম তালুকদার ও কবি দাউদ আল হাফিজসহ আরও অনেক সাহিত্যিক, চিকিৎসক ও সর্বস্তরের জনগণ। পাঁচ হাজারের ওপরে মৃত্যুশোক বহন করছে দেশবাসী। তারপরও স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার চেষ্টা করছি। আমরা আবার অন্ধকার থেকে আলোর জগতে আসব। আত্মবিশ্বাস নিয়ে নজরুলের কণ্ঠে বলতে চাই, ‘আমরা টুটাব তিমির রাত’। এই চেষ্টায় আপনারা নিশ্চয়ই আমাদের সঙ্গে থাকবেন, আশা আমাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares