সম্পাদকীয় : তৃতীয় বর্ষ একাদশ সংখ্যা নভেম্বর ২০১৬

সম্পাদকীয়

তৃতীয় বর্ষ    একাদশ সংখ্যা   নভেম্বর ২০১৬

সাহিত্যবিভায় জন্মদিন

 

আমরা বিশ্বাস করি সাহিত্যিকের মৃত্যু নেই। তাই মৃত্যুদিবস নয়। জন্মদিবসকে সামনে রেখেই শব্দঘর স্মরণ করার চেষ্টা করে আসছে বাংলাসাহিত্যজগতে আসন নেওয়া দিকপালদের। শব্দচাষের মাধ্যমে যুগের পাতায় টিকে থাকেন সৃষ্টিশীল কবি-কথাসাহিত্যিকরা। এই অর্থে দেহের মৃত্যু হলেও তার সৃষ্টিকর্মের মৃত্যু ঘটে না- কেন্দ্রীয় কচি-কাঁচার মেলার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক কিংবদন্তি শিশুসাহিত্যিক ও শিশুসংগঠক রোকনুজ্জামান খান দাদাভাই কচি-কাঁচাদের অন্তরে এই মহৎ দৃষ্টিভঙ্গি রোপণ করে দিয়েছিলেন। এ কারণেই এবার তিন প্রখ্যাত শব্দশিল্পী কবি শামসুর রাহমান, কবি বেলাল চৌধুরী ও কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের জন্মবার্ষিকীকে গুরুত্ব দিয়ে সাজানো হয়েছে শব্দঘর-এর এ সংখ্যার বিশেষ ডালা।

বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কবি শামসুর রাহমানের কবিতা শাশ্বত সৌন্দর্যের রস উপভোগের তৃষ্ণা মেটায়। এই তৃষ্ণা পাঠপিয়াসু পাঠকের চিরকালীন চাহিদা। আর এ চাহিদা পূরণের মাধ্যমে কবি কাব্যপঙ্ক্তির মধ্য দিয়ে দখল করে নেন পাঠকের অন্তর্গত প্রেষণা- তাদের উৎসাহ-আকাঙ্ক্ষা পূরণের মাধ্যমে অমরত্বের আসনে অধিষ্ঠিত হন। এর ভেতর দিয়ে আসলে কবির ভাবসত্তারই প্রকাশ ঘটে। একজন স্পর্শকাতর অনুভূতিশীল কবি হিসেবে তিনি বহির্জগতের মুখোমুখি হয়ে তাঁর অন্তর্জগৎকে কিভাবে দাঁড় করিয়েছেন, কিভাবে তাঁর আত্মাকে প্রকাশিত করেছেন, কিভাবে তাঁর ভাবসত্তার উন্মীলন ঘটিয়েছেন- ‘এই সময়ের প্রধান কবি শামসুর রাহমান : তাঁর আত্মার চিৎকার’ নিবন্ধে তারই নান্দনিক ও শৈল্পিক ব্যবচ্ছেদ করেছেন জুলফিকার মতিন।

কবি বেলাল চৌধুরীর কাব্যানুসন্ধানের মূল লক্ষ্য জীবন কিন্তু উপস্থাপনার কলাকৌশলে রয়েছে শৈল্পিক নান্দনিকতা। এই দুইয়ের সমন্বয় তার কবিতাকে সবসময়ই স্লোগান থেকে দূরে রেখেছে। যে-শিল্প শুধু শিল্পের জন্য তাও জীবনকে আনন্দ দেবার জন্যে, উজ্জীবিত করার জন্যেই, শেষমেশ তারও লক্ষ্য জীবন। কাজেই শিল্প, এবং শিল্পের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম কবিতা, জীবনেরই জন্য- কাজী জহিরুল ইসলামের বিশ্লেষণে ষাটের দশকের গুরুত্বপূর্ণ কবি বেলাল চৌধুরীর কবিতায় জীবনের এ বিভাসই ফুটে উঠেছে।

যে-সাহিত্যকর্ম বাস্তবতালগ্ন নয়, তা নিতান্তই ঠুনকো। এই ঠুনকো সাহিত্য পাঠকরা পড়ে তাৎক্ষণিক কিছু সময় হয়তো আহা-উহু করবে, তারপর দূরে ছুড়ে ফেলবে। আর যে-সাহিত্যে জীবন-ঘষা ফুলকি আছে, সেই সাহিত্যে যুগ থেকে যুগান্তরে অবগাহন করে যায় মানুষ। হুমায়ূন আহমেদের গৌরীপুর জংশন সাধারণ মানুষের জীবন-ঘষা স্ফুলিঙ্গ। রেলস্টেশন মানবজীবনের হাটবাজার। এখানে জীবনের সকল ধরনের ঘটনা সংঘটিত হয়। হাসি-কান্না, ভালোবাসা-প্রতারণা, জিঘাংসা-রিরংসা, রাগ-অনুরাগ- সকল ধরনের কর্মকাণ্ডের মঞ্চ যেন এক একটা রেলস্টেশন। গৌরীপুর জংশনও তার ব্যতিক্রম নয়। কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ এমন জীবনঘনিষ্ঠ সাহিত্যসম্ভারের স্র্রষ্টা- এ মূল্যায়নই ফুটে উঠেছে সাম্প্রতিককালের আরেক ক্ষুরধার কথাশিল্পী হরিশংকর জলদাসের আলোচনায়।

নভেম্বর মাসে জন্মগ্রহণকারী খ্যাতিমান কবি, সাহিত্যিক, প্রাবন্ধিকদের শুভ জন্মদিনে শব্দঘর-এর পক্ষ থেকে জানাই প্রাণঢালা শুভেচ্ছা। এই মাসের জাতকরা হলেন লোক-সাহিত্যবিশারদ দীনেশচন্দ্র সেন, ফরাসি সাহিত্যিক আলবেয়ার কামু, কথাসাহিত্যিক আনোয়ারা সৈয়দ হক, কবি রবীন্দ্র গোপ, কবি শামীম আজাদ, কবি মারুফ রায়হান, কবি রেজাউদ্দিন স্টালিন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares