সাহিত্য সংস্কৃতি মাসিক পত্রিকা
শুদ্ধ শব্দের নান্দনিক গৃহ


প্রকাশক : মাহফুজা আখতার
সম্পাদক : মোহিত কামাল
সাহিত্য সংস্কৃতি মাসিক পত্রিকা শুদ্ধ শব্দের নান্দনিক গৃহ

পুরস্কার

July 26th, 2018 7:40 pm
পুরস্কার

পুরস্কার

বাংলা একাডেমির তিন সাহিত্য পুরস্কার

বাংলা একাডেমি পরিচালিত তিন সাহিত্য পুরস্কার সাদত আলী আখন্দ সাহিত্য পুরস্কার-২০১৬, মযহারুল ইসলাম কবিতা পুরস্কার-২০১৬ এবং কবীর চৌধুরী শিশুসাহিত্য পুরস্কার-২০১৫ প্রাপ্তদের ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ বাংলা একাডেমির ৩৯তম বার্ষিক সাধারণ সভায় আনুষ্ঠানিকভাবে এই তিনটি পুরস্কার প্রদান করা হয়। সাদত আলী আখন্দ সাহিত্য পুরস্কার পেয়েছেন কথাসাহিত্যিক হোসেনউদ্দীন হোসেন। পুরস্কারের অর্থমূল্য ৫০পঞ্চাশ হাজার টাকা। যা প্রদান করেছেন মরহুম সাহিত্যিক সাদত আলি আখন্দের কন্যা তাহমিনা হোসেন। মযহারুল ইসলাম কবিতা পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন কবি আবুবকর সিদ্দিক। পুরস্কারের অর্থমূল্য এক লাখ টাকা, যা প্রদান করেছেন অধ্যাপক মযহারুল ইসলামের পরিবার। কবীর চৌধুরী শিশুসাহিত্য পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন শিশুসাহিত্যিক আখতার হুসেন। পুরস্কারের অর্থমূল্য ১ লাখ টাকা, যা প্রদান করেছেন অধ্যাপক কবীর চৌধুরীর পরিবার।

পুরস্কার : ভারত

ভারতে সাহিত্যের সর্বোচ্চ পুরস্কার জ্ঞানপীঠ সম্মানে ভূষিত হলেন প্রখ্যাত বাঙালি কবি শঙ্খ ঘোষ

ভারতে সাহিত্যের সর্বোচ্চ পুরস্কার জ্ঞানপীঠ সম্মানে ভূষিত হলেন প্রখ্যাত বাঙালি কবি শঙ্খ ঘোষ। জীবনভর সাহিত্যে অবদান রাখার জন্য এই সম্মাননা দেওয়া হয়। শঙ্খ ঘোষ পেলেন ৫২তম জ্ঞানপীঠ সম্মান। সর্বশেষ ১৯৯৬ সালে বাঙালি হিসেবে এ সম্মাননা পেয়েছিলেন সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবী। ১৯৬৬ সালে তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে বাংলা সাহিত্যে প্রথম জ্ঞানপীঠ পদক এসেছিল। এরপর পুরস্কার পান কবি বিষ্ণু দে (১৯৭১), আশাপূর্ণা দেবী (১৯৭৬) ও কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায় (১৯৯১)। বাংলা ছাড়া হিন্দি, মারাঠি, অসমিয়া, পাঞ্জাবি, মালায়লম ভাষাতেও লিখেছেন কবি শঙ্খ ঘোষ। এর আগে তিনি পেয়েছেন সাহিত্য একাডেমি পুরস্কার, নরসিংহ দাস পুরস্কার, সরস্বতী সম্মান, রবীন্দ্র পুরস্কার, ভারতের রাষ্ট্রীয় সম্মান পদ্মভূষণ ও বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের দেশিকোত্তম। ১৯৩২ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের চাঁদপুরে কবি শঙ্খ ঘোষের জন্ম। তাঁর সাড়া জাগানো কবিতার মধ্যে রয়েছে তুমি তো তেমন গৌরী নও, মুখ ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনে, পিঞ্জরে দাঁড়ের শব্দ, বাবরের প্রার্থনা প্রভৃতি। রবীন্দ্র বিশেষজ্ঞ হিসেবে খ্যাতি রয়েছে তাঁর।

 

আদম সম্মাননা পেলেন

কবি পিয়াস মজিদ, আলতাফ শাহনেওয়াজ, আল ইমরান সিদ্দিকী

গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ কলকাতার বাংলা আকাদেমিতে কবি গৌতম চৌধুরীর হাত থেকে তরুণ কবি হিসেবে আদম সম্মাননা-২০১৫ গ্রহণ করেন কবি পিয়াস মজিদ। আদম সম্মাননা-২০১৬ এর জন্য বাংলাদেশ থেকে এবার নির্বাচিত হয়েছেন সম্ভাবনাময় দুই তরুণ কবি। আলতাফ শাহনেওয়াজ (জন্ম ১৯৮১) ও আল ইমরান সিদ্দিকী ( জন্ম১৯৮৩)।

 

প্রথম আলো বর্ষসেরা বই ১৪২২

পুরস্কার পেয়েছে

সৈয়দ আবুল মকসুদ ও ফয়জুল ইসলামের বই

সৈয়দ আবুল মকসুদের গবেষণাগ্রন্থ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বাংলাদেশে উচ্চশিক্ষা এবং ফয়জুল ইসলামের গল্পের বই খোয়াজ খিজিরের সিন্দুক প্রথম আলো বর্ষসেরা বই-এর পুরস্কার পেয়েছে। সৈয়দ আবুল মকসুদের বইটি পুরস্কার পেয়েছে মননশীল শাখায় এবং ফয়জুল ইসলামের বইটি সৃজনশীল শাখায়। ১৪২২ বাংলা সনে বাংলাদেশে প্রকাশিত মৌলিক বইগুলোর মধ্য থেকে বিচারকমণ্ডলী বই দুটিকে পুরস্কৃত করার সিদ্ধান্ত নেন। প্রথম আলোর উদ্যোগে ১৩ বছর ধরে এ পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে।

অধ্যাপক ড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে আবুল মোমেন, মোহীত উল আলম, সোনিয়া নিশাত আমিন ও ফারুক মঈনউদ্দীনের সমন্বয়ে এবারের বিচারকমণ্ডলী গঠন করা হয়। বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনের ১৪ জানুয়ারি ২০১৭ বিকেল পাঁচটায় বিজয়ী এ দুই লেখকের প্রত্যেককে ১ লাখ টাকা, ক্রেস্ট ও অভিজ্ঞানপত্র দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মানিত করা হয়। সৈয়দ আবুল মকসুদের বইটি প্রকাশ করেছে প্রথমা প্রকাশন। ফয়জুল ইসলামের বইটি বেরিয়েছে সমগ্র প্রকাশন থেকে।

সৈয়দ আবুল মকসুদের জন্ম ২৩ অক্টোবর ১৯৪৬, মানিকগঞ্জে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক। পেশা হিসেবে বরণ করেন সাংবাদিকতাকে। পরে বার্লিনের ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব জার্নালিজম থেকে সাংবাদিকতা বিষয়ে উচ্চতর প্রশিক্ষণ নেন। চাকরিজীবনে সর্বশেষ ছিলেন বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা বাসসের বার্তা স¤পাদক। এক বিশেষ পরিস্থিতিতে প্রতিবাদ হিসেবে বাসস থেকে তিনি পদত্যাগ করেন। তিনি চট্টগ্রাম থেকে প্রকাশিত দৈনিক সুপ্রভাত-এর স¤পাদক ছিলেন। বর্তমানে ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক হিসেবে কাজ করছেন। সৈয়দ আবুল মকসুদ দেশের বিশিষ্ট গবেষক, জনপ্রিয় কলামিস্ট, পরিবেশ-সামাজিক-মানবাধিকার আন্দোলনের অগ্রবর্তী কর্মী। তাঁর এ পর্যন্ত প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ৩০-এর বেশি। তাঁর কয়েকটি বই পূর্ববঙ্গে রবীন্দ্রনাথ, রবীন্দ্রনাথের ধর্মতত্ত্ব ও দর্শন, ঢাকার বুদ্ধদেব বসু, সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহর জীবন ও সাহিত্য (২ খণ্ড), মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী, গান্ধী নেহরু অ্যান্ড নোয়াখালী ও গান্ধী ক্যাম্প। বাংলা একাডেমি পুরস্কার, ঋষিজ পুরস্কারসহ বিভিন্ন পুরস্কারে তিনি ভূষিত হয়েছেন।

ফয়জুল ইসলামের জন্ম ২৪ নভেম্বর ১৯৬৩, ঢাকার সিদ্ধেশ্বরীতে। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে পড়েছেন পাবনা জিলা স্কুল ও পাবনা এডওয়ার্ড কলেজে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর। পরে উন্নয়ন অর্থনীতিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেন যুক্তরাষ্ট্রের উইলিয়ামস কলেজ থেকে। প্রথম গল্পগ্রন্থ নক্ষত্রের ঘোড়া প্রকাশিত হয় ১৯৯৮ সালে। ফয়জুল ইসলাম ১৯৯৪ সালে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে যোগ দেন। বর্তমানে বাংলাদেশ পরিকল্পনা কমিশনে উপপ্রধান হিসেবে কর্মরত।