কবির খবর

 

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব হলেন কবি কামাল চৌধুরী

দেশের প্রথিতযশা কবি ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী (কবি কামাল চৌধুরী) সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। তাঁর এ নিয়োগ সাহিত্য-সংস্কৃতি জগতে ব্যাপক আনন্দজোয়ার বয়ে এনেছে, প্রশাসনেও। বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ এবং তরুণ প্রজন্মের কাছে নানা কারণে পরিচিত নাম কামাল চৌধুরী। বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের ১৯৮২ ব্যাচের কর্মকর্তা কামাল চৌধুরী ২০১৩-১৭ মেয়াদে বর্তমানে ইউনেস্কোর নির্বাহী বোর্ডে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেনÑ তিনি  এই বোর্ডের কনভেনশনস অ্যান্ড রিকমেন্ডেশনস কমিটির চেয়ারম্যান। তার আগে  ২০১৩-১৫ মেয়াদে বোর্ডের ভাইস-চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

তিনি নৃ-বিজ্ঞানে ‘গারো জনগোষ্ঠীর মাতৃসূত্রীয় আবাস প্রথা’ নিয়ে গবেষণার জন্য পিএইচডি লাভ করেন। মধ্যসত্তরে তারুণ্যদীপ্ত ও দ্রোহী কবিতা নিয়ে  কাব্যজগতে প্রবেশ করেন। তারপর দেশি-বিদেশি বিভিন্ন পেশাজীবী, শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থার সঙ্গে সক্রিয়ভাবে জড়িত হতে থাকেন। শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতির ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য তিনি বাংলা একাডেমির ফেলো এবং বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটির জীবন সদস্যের স্বীকৃতি পেয়েছেন। কবি হিসেবে তিনি যেমন খ্যাতিমান, দক্ষ প্রশাসক হিসেবেও রয়েছে তাঁর সুখ্যাতিÑ দুই গুণেরই সমন্বয় ঘটেছে এই মেধাবী কবি ও প্রশাসকের মধ্যে।

তিনি সাহিত্যে অবদানের জন্য ২০১১ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার, ২০১০ সালে সিটি-আনন্দ আলো পুরস্কার, ২০০৮ সালে জীবনানন্দ পুরস্কার এবং ২০০৪ সালে কবিতালাপ সাহিত্য পুরস্কার পান। এছাড়া কলকাতার সৌহার্দ্য সম্মাননা (২০০৩) এবং ২০১১ সালে আসাম বিশ্ববিদ্যালয় সম্মাননাসহ বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। এ পর্যন্ত তাঁর ২১টি কবিতার বই, দুটি স¤পাদিত কাব্যগ্রন্থ এবং বেশ কয়েকটি গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। কবি কামাল চৌধুরী সাহিত্য সংস্কৃতির মাসিক পত্রিকা শব্দঘর-এর সম্মানিত উপদেষ্টা।

 

প্লেটোর প্রতি প্রতিশোধ!

কবি মানে ময়লা পা›জাবি পরিহিত আলাভোলা এক জীব; আকাশ পানে ভাবের জন্য তাকানোÑ

বিষয়টা তা না। কবি এখন গোছানো মানুষ। ¯িœগ্ধ কিন্তু সময়ভেদে টাফ! কবি কামাল চৌধুরী। আমাদের প্রিয় কামাল ভাই তছনছ করে দিয়েছেন কবির সনাতন ভাবমূর্তি। তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব হয়েছেন। প্লেটো কবিদের রাষ্ট্র থেকে তাড়াতে চেয়েছিলেন।

আলাভোলা-স্থির অভিযোগে। অমল জবাব দিয়েছেন প্রিয় ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আমরা খুশি।

Ñসরকার আমিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares